সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাম্পেইন : ভাল ফলাফল না পাবার ৫ টি কারন

একটা প্রচলিত এবং বাস্তব সত্য হল যে, মানুষ কে কিভাবে আমার দিকে ধাবিত করব বা আমার কথা শুনাব বা কেউ আমার নির্দেশনা অনুযায়ী চলবে এটা কখন হয়?? সেটা আমাদের একদম সাধারন জ্ঞানেই বলে দেয়। যেমন ধরুন রাস্তার মধ্যে কোন চোর ধরা পড়ল এখন সবাই সবার মত চোরকে ধমকাচ্ছে কেউ কেউ মারছে। অর্থাৎ সবাই যার যার মত বিচার করছে বা কথা বলছে কিন্তু আপনি ওখানে আপনার কথা সবাইকে শুনাবেন। বা আপনি বিচার করবেন। বা আপনি ওখানের নেতা হবেন। এটা কিভাবে সেটা আপনার একদম সাধারন জ্ঞানই বলে দিবে। কিন্তু আমরা  এটা পারি না । কারন কিছু জ্ঞানের অভাব, সময়ের অভাব, শক্তির অভাব। কিন্তু সোস্যাল মিডিয়াতে মানুষ একত্রিত করা এটা খুব সহজ সুন্দর কন্টেন্ট এর মাধ্যমে। কন্টেন্ট কনফিডেন্স এর মাধ্যমে। সত্যতার মাধ্যমে সুন্দর মোটিভেশন এর মাধ্যমে। এবং বড় ব্যাপার হল সুন্দর পরিকল্পনার মাধ্যমে। এ গুলো একদম কমন ব্যাপার। তাই এই লেখাটি সামান্য কিছুটা আলাদা হতে যাচ্ছে.আপনি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে এ সব ফাদ থেকে এড়াতে পারবেন। কোন ধরনের কাজে আপনার বাধা হবে না। এবং আপনার কাজটি হবে সহজ এবং বাস্তব সম্মত। আপনার ক্যাম্পেইন এ কাজ না করার ৫ টি কারন নিচে উল্লেখ করলাম।

এটি পড়ার আগে পূর্বের পোষ্টটি পড়ে নিন। আপনার জন্য উপকার হবে ।  ফেসবুক থেকে ইনকাম  এর ব্যাতিক্রম কিছু উপায়। পূর্বের টির লিংক।

http://genesisblogs.com/tips-2/6555

Regular-exercise

১। আপনি যদি নিয়মিত না হন:

আপনি যদি নিয়মিত সক্রিয় হতে না পারবেন যখন সোশ্যাল মিডিয়া আপনার জন্য ভালো কাজ করবে না। কারন নির্ধারিত কোন জিনিস নিয়মিত  সময়ে উপস্থাপনা না করার কারনে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের জন্য ভাল ফল নিয়ে আসেনা।

 সমাধান:

আপনি নিয়মিত পোষ্ট নিশ্চিত করার জন্য, আপনি জায়গায় একটি পোস্টিং পরিকল্পনা আছে প্রয়োজন. এই সামাজিক মিডিয়া আপডেট জন্য HootSuite, বাফার বা SproutSocial মত একটি টুল ব্যবহার করে, এবং আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করছেন (সেট অন্তর লাইভ যেতে আপনার ব্লগ ​​পোস্ট সময় নির্ধারণ জড়িত থাকে, সিডিউলিং ইন নির্মিত হয় শুধু পরের থেকে ‘সম্পাদনা করুন’ ক্লিক করুন ‘অবিলম্বে প্রকাশ করুন ‘). এছাড়াও আপনি আপনার বিষয়বস্তুর জন্য একটি সম্পাদকীয়তে ক্যালেন্ডার থাকার কথা বিবেচনা করতে পারেন: এখানে আপনি HubSpot থেকে ডাউনলোড করতে পারেন এক, এবং এখানে একটি সম্পাদকীয়তে ক্যালেন্ডার ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন এর. একটি সম্পাদকীয় ক্যালেন্ডার, সব পরে, 2014 সালে আপনার কন্টেন্ট বিপণন ROI দ্বিগুণ ভাল উপায়. এছাড়াও আপনি পড়তে এবং মন্তব্য সাড়া এবং প্রশ্নের উত্তর দিতে সময় সময় নির্ধারণের ভুলবেন না.

content-writting

২। কোন কিছুর ইউনিক পোষ্ট না করাঃ

খুব প্রায়ই, ব্যবসা মালিক তাদের ব্লগ ​​বা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের জন্য লিখিত চমৎকার কিছু কন্টেন্ট দেখা যায়। আবার অনেকে কন্টেন্টের জন্য অনেক বড় একটা বিনিয়োগ ও করে থাকেন। কিন্তু কন্টেন্ট অত্যন্ত ভালো করে লেখা হতে পারে, আবার কিছু কিছু কন্টেন্ট থাকে অতুলনীয়। কিন্তু আমরা কন্টেন্ট গুলোকে ওভাবে ইউনিক বা মৌলিক করতে পারি না। কারন যত ভালো করেই লিখি সেটাও ভাল কোন লেখা থেকে কপি করে।

সমাধানঃ

আপনি আপনার ব্লগ এবং সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের জন্য আপনার লেখা আর্টিকেল, ওটাকে কোন কম্পানির ব্লগ বা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে কপি করবেন না। কপি করার কিছু নিয়ম অবলম্বন করবেন। যেমনঃ আপনি যদি কপি করেন তাহলে কার কাছ থেকে কপি করছেন কি কি অংশ কপি করেছেন ওটুকু অবশ্যই ওই পোষ্টের লিংক অথবা লেখকের নাম দিয়ে উল্লেখ করবেন।

focus

৩। আপনি যেটার জন্য ফোকাস করবেন, ওটার জন্য খুব বেশি প্রাপ্তি থাকা দেওয়া টাকে বেশি গুরুত্ব না দেওয়াঃ

আমরা কোন পন্য বা কোন সার্ভিস বা যে কোনকিছুর ই হোক না এ গুলোর উপর কোন ধরনের মার্কেটিং বা ক্যাম্পেইন করতে গেলে আমাদের যে সার্ভিস অথবা পন্য যা আছে ওখান থেকে আমাদের অনেক লোক আসবে বা আমাদের সার্ভিস বা পন্যটি গ্রহন করবে এই বিষয়টার উপর গুরুত্ব দিলে আমাদের ক্যাম্পেইন হবে কিন্তু কম্পানি রেপুটিশন এ একধরনের এফেক্ট পরবে। যেমন যাত্রবাড়ি থেকে গাবতলীর ৮ নং বাস। এই বাসে মানুষ ডাকার কারন কি?? কারন হল- বাস টি গাবতলী যাবে যারা গাবতলী বা গাবতলী যেতে যে ষ্টেশন গুলো আছে সেখানের যাত্রীরা উঠবে ও্ই সব স্টেষন এ নামবে। কিন্তু এই ৮নম্বর বাস যদি মোহাম্মদ পুরের কোন যাত্রী তোলে বা ২৭ নম্বরের কোন যাত্রী তোলে তাহলে ব্যাপার টা ক্যামন হবে?? হ্যা মোহাম্মদ পুর বা ধানমন্ডি ২৭ কাছা কাছি । এক্ষেত্রে  হেলপার এর কি সাজেষ্ট করা উচিত?? যে আমাদের বাস আসাদ গেট হয়ে যাবে আপনি ওখানে থেকে নেমে অন্য গাড়িতে বা হেটে যেতে পারবেন। কিন্তু সেটা না বলেই যদি বলে মোহাম্মদপুর যাবে বা ধানমন্ডি ২৭ নম্বর যাবে। তাহলে ব্যাপার টা ক্যামন হবে। এ জন্য আপনি মানুষকে সঠিক তথ্য দেন দেখবেন আপনি যদি তার ফোকাসের সহযোগী হন তো সে অবশ্যই আপনার সাথে আসবে । আপনার কথায় গুরুত্ব দিবে।

সমাধানঃ

সব সময় মানুষ কে দেওয়া মানসিকতা বাড়ান। আপনি আপনার সার্ভিস টাকে ফোকাস করার সাথে সাথে সেইম সার্ভিস কারা দিচ্ছে তাদের ব্যাপারে ও আপনার ভাল মন্তব্য থাকতে হবে। তাদের ভাল দিক গুলোকে আপনার তুলে ধরতে হবে। তাহলে মানুষ আপনাকে অনেক কাছ থেকে নিতে পারবে। আপনাকে একদম তাদের কাছের কোন মানুষ ভাববে। কখনো ভূল তথ্য বা কোন কম্পানি বা ব্যাক্তির নামে কোন দূর্নাম করবেন না। অর্থাৎ ফেইক কোন কিছুর আশ্রয় নিবেন না।

Successful-Social-Media-Campaign1

৪। আপনি আপনার ভিজিটর দের জন্য সঠিক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছেন কিনা??

আপনি মানুষকে একত্রিত করার জন্য পোষ্ট দিবেন। কিন্তু এটা যদি কোন টার্গেটেট মানুষের কাছে না যায় বা যাদের জন্য পোষ্ট দিচ্ছেন তারা যদি খুজে না পায় তবে ব্যাপার টা ক্যামন হবে?? এটা হল আসল পয়েন্ট। অনেক বড় বড় কম্পনি তাদের মূল মার্কেটিং এর জন্য সোস্যাল নেটওয়ার্ক টা বেছে নেয় কিন্তু তারা নিজেরাও বিষয় টা সম্পর্কে ওই রকম ধারনা রাখে না। আমি মনে করি কোন ধরনের যাচাই বাছাই ছাড়া সোশ্যাল নেটওয়ার্কে আসা ঠিক না ।

সমাধানঃ

সোস্যাল মিডিয়াতে ক্যাম্পেইন বা মার্কেটিং করতে গেলে আপনাকে অবশ্যই টার্গেটেট মানুষের কাছে তথ্য দিতে হবে। যদি আপনি কোন শার্ট টি-শার্ট এর মার্কেটিং করেন সে ক্ষেত্রে আপনাকে ওই ধরনের গ্রুপ গুলোতে কাজ করতে হবে ক্যাম্পেইন করতে হবে। আপনি যদি শার্ট এর মার্কেটিং রেসিপির পেইজে বা গ্রুপে করে ন সে ক্ষেতে আপনার উপর এবং আপনার কম্পানির উপর মানুষের একটা খারাপ ধারনা জন্মাবে। আপনার কারনে যাতে আপনার কম্পানির কোন রেপুটিশন খারাপ না হয় সেটা আপনাকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। এজন্য সঠিক নেটওয়ার্ক অবশ্যই আপনাকে ম্যান্টেন করতে হবে।

সোশ্যাল নেটওয়ার্কের প্রতিটি মূল জনসংখ্যার উপাত্ত উপর কিছু গবেষণা করে এ ফিল্ডে নামতে হবে. এবং স্পেশাল কোন ম্যাসেজ বা কোন তথ্যর জন্য অবশ্যই ইনবক্স বা মেইল ব্যাবহার করবেন।

Course_01

৫। ইনফো গ্রাফী ব্যাবহার না করাঃ

আমরা সাধরানত কোন ইনফো গ্রাফী টা খুব কম ব্যাবহার করি । কিন্তু কোন ক্যাম্পেইন বা মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে ইনফো গ্রাফী খুবই গুরুত্ব পূর্ন। কেননা আকর্ষনীয় ফটো সব সময় ভিজিটর দের চোখে পরে । তারা লেখা দেখার আগেই ফটো টাকে ভালো ভাবে দেখে নেই ।

সমাধানঃ

ইনফো গ্রাফী তে আপনি আপনার পুরো ডিটেলস দিতে পারেন সুন্দর ডিজাইনের মাধ্যমে। আমরা ইমেজ দিয়েও এর নিচে অনেক বড় আর্টিকেল লিখে ফেলি। তাহলে এটার মাধ্যমে আপনার লাভ কম হবে। ইমেজের নিচে সব সময় ছোট কনেন্ট ব্যাবহার করতে হবে । কম্পানির পিছনের কোন ইভেন্ট বা কোন ধরনের অনুষ্ঠানের ছবি গুলো অবশ্যই শেয়ার করবেন। তাহলে আপনার কম্পানির বা সার্ভিসের উপর মানুষের কনফিডেন্স বাড়বে। প্রত্যেক টা ছবির সাথে ছবির বর্ননা অবশ্যই দিতে হয়। আপনার প্রডাক্টের কত প্রাইজ কি ধররেন সার্ভিস এ গুলো গুরুত্বপূর্ন যে সব বিষয় ও গুলো সব সময় আপনার ওয়েব সাইটের ব্লগে থাকবে। আপনি শুধু এগুলোর বিস্তারিত দেখার জন্য আপনার সাইটের লিংক দিয়ে দিবেন। কখনো কোন প্রডাক্ট এর ব্যাপারে কোন ভিজিটর এর সাথে রাগা রাগি করবেন না।

শুরু করুন প্রাকটিসঃ

আপনি আাপনার একটা ব্যাক্তিগত পন্য দিয়ে শুরু করুন। যেমন পার্সোনাল মোবাইল ফোন। ওইটার বর্তমান মূল্য কত?? এবং আপনি ওইটা যদি এখন বিক্রি করেন পারে?? (যদিও আপনি বিক্রি করবেন না) সে ক্ষেত্রে কত মূল্য হতে পারে?? 4/5 টা ছবি তুলে সব কিছু নিয়ে একটা ফিচার লিখে ফেলুন আপনার মোবাইল ফোন সম্পর্কে। কেন বিক্রি করতে চান উল্লেখ করুন। অর্থাৎ কোন ক্লাইন্টের থেকে যাতে আপনাকে আলাদা কোন প্রশ্ন না পেতে হয় । এভাবে করে ফিচার টি লিখে ফেলুন। তার পরে আপনি ওটাকে পোষ্ট দিতে থাকেন আপনি যে সব গ্রুপ এ একটিভ ছিলেন । শুরু হবে আপনার ক্যাম্পেইন। এর পরে দেখতে থাকেন কেমন ফোন বা ইনবক্সে মেসেজ আসে। তারা কি চাচ্ছে সেটা তাদের ম্যাসেজ এর মাধ্যমে জানতে পারবেন। আপনার পন্যর দামটি সঠিক কিনা বা এটার জন্য আরো কোন কিছু লাগবে কিনা সেটা কমেন্ট ফোন বা মেসেজের মাধ্যমে জানতে পারবেন। এভাবে শুরু করুন ক্যাম্পেইন। শুরু করতে গিয়ে যদি কোন ফোন না আসে, কমেন্ট না আসে  বা ইনবক্সে ম্যাসেজ না আসে তবে অবশ্যই অনলাইন মার্কেটার্স বিডি গ্রুপ এ নক করবেন। আপনার প্রবলেম গুলো সলভ করে দেওয়ার চেষ্টা করব। যদি কেউ প্রাকটিস শুরু করেন শুরুতে আমাকে নক দিয়ে নিবেন তাহলে আরো কিছু গাইড দেয়ার চেষ্টা করব। নিয়মিত ক্যাম্পেইন করতে থাকেন । সেল হবেই ।

পরবর্তী পোষ্টঃ

*  প্রডাক্ট কিভাবে পাবেন??

* কোথা থেকে পাবেন??

* প্রডাক্ট কিভাবে নিবেন??

* কোন প্রডাক্ট কিভাবে ডিল করতে হয়??

এসব বিষয়ের উপরে। তার আগে আপনি কাজ শুরু করে দিন। ব্যাক্তিগত প্রডাক্ট দিয়ে শুরু করুন। তাহলে পরের পোষ্ট আপনার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ হবে।

মার্কেটিং জানার জন্য বা জানানোর জন্য জয়েন করতে পারেন অনলাইন মার্কেটার্স বিডি 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s