Thread Rating: 1 2 3 4 5 অনপেজ অপটিমাইজেশন চেক লিস্ট গাইডলাইন

http://community.tafserahmed.com/showthread.php?tid=37

 

অনপেজ অপটিমাইজেশন নিয়ে আলোচনা করতে হলে অনেক করা যাবে। ইনশাল্লাহ সামনে আরও করব। আমি প্রতিটা প্রোজেক্টে কাজ করার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত চেষ্টা রাখি, সবকিছু নোট করে রাখতে। যাতে করে আমার পরবর্তীতে কোন ধরনের সমস্যা না ফেস করতে হয় র‍্যাঙ্কিং এর ক্ষেত্রে। এবং আমার এই স্ট্রাটেজি সর্বদা সাকসেস হয়েছি। Big Grin

এখন ২০১৫। অনেককিছু পরিবর্তন হয়েছে। গুগলের এলগোরিদমেও অনেক পরিবর্তন এসেছে। আমরা হয়ত শুধু জানি যে, গুগল এর এলগোরিদম আপডেট হয়েছে, কিন্তু অনেক জানিনা যে, এই আপডেটগুলো আসলে কিসের উপর ভিত্তি করে গুগল দেই। মেইনলি মেজর আপডেটগুলো দেওয়া হয় অনপেজ অপটিমাইজেশনের জন্য। কিছুদিন আগে একটা চেকলিস্ট তৈরি করেছিলাম অনপেজ এসইও এর জন্য। সেটা এসইওচ্যাট ফোরামে শেয়ার করেছিলাম।

সেই ভার্সনটি বাংলাতে এখানে শেয়ার করলাম। যাতে করে আপনাদের বুঝতে সুবিধা হয়। আমার এই অনপেজ চেকলিস্টটা ওয়ার্ডপ্রেস সিএমএস ব্যবহারকারীদের জন্য একটু বেশি উপকারী। তো চলুন দেখা যাক একটা নতুন ওয়েবসাইট এর জন্য কি কি করবেন। যদি চেকলিস্ট থেকে সব না করে থাকেন, তবে এখনি করে ফেলুন ।

১. ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করুন।

২. আপনি কি এসইও বান্ধব ওয়ার্ডপ্রেস থিম ইন্সটল করেছেন? যদি না করেন, তবে অবশ্যই সেটি করুন। সেটা হতে পারে ফ্রী অথবা প্রিমিয়াম।
আমি সর্বদা প্রিমিয়ামে প্রাধান্য দেই, এই কারনে যে ডেভেলপাররা এটার সেল বৃদ্ধির জন্য তারা খুব সুন্দর করে সেটিকে ডেভেলপ করে। কিন্তু ফ্রী এর ক্ষেত্রে সাধারণত এটা হয় না। আবার অনেকে করে, বেশি ডাউনলোড করানোর জন্য। তবে ফ্রী তে সংখ্যা তে সেটা খুবই নগণ্য।

৩. আপনার সাইট কি ইন্ডেক্স না ডি-ইন্ডেক্স? ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করার পর পর-ই কিন্তু সাইট অটোমেটিক ইনডেক্স হয়ে যায়। সুতরাং এটাকে ডি-ইন্ডেক্স করুন, যতক্ষণ আপনার সাইট এর কাজ শেষ না হচ্ছে। এর জন্য setting>Reading> গেলে আপনি ডি-ইন্ডেক্স করার জন্য চেকবক্স পাবেন সেখানে চেক দিন, সাইট সার্চ ইঞ্জিন থেকে আপাতত ডি-ইন্ডেক্স থাকবে।

৪. আপনি কি গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাগিনগুলো কি সেটআপ করেছেন? যদি না করেন তবে দেখে নিন কোন প্লাগিনগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং সেগুলো সেটআপ দিন।

  • ডব্লিউ৩ টোটাল ক্যাশ – সাইট এর পারফর্মেন্স বৃদ্ধির জন্য
  • আকিস্মেত – স্প্যাম কমেন্ট থেকে ব্লগ কে রক্ষা করার জন্য
  • জেটপ্যাক – অনেক ফিচার আছে, এই প্লাগিনে । যেগুলা আপনার অনেক প্লাগিন ইন্সটল এর থেকে রক্ষা করে। একি সাথে ভিজিটর চার্ট দেখা যায়, সেজন্য প্লাগিনটা অনেক পপুলার।
  • মেইলচিম্প ফর ওয়ার্ডপ্রেস – আপনার ভিজিটরদের মেইললিস্ট তৈরি করার জন্য প্লাগিনটী ব্যবহার করুন।
  • ইয়োস্ট এসইও প্লাগিন – আপনার সার্চ ইঞ্জিন ভিজিবিলিটি বৃদ্ধির জন্য এই প্লাগিনটি ব্যবহার করুন।
  • ইজি টেবিল – বিভিন্ন পোস্ট, পেজ অথবা উইজেডে ব্যবহার করতে পারবেন এই টেবিল প্লাগিনটি। একই সাথে সুন্দর টেবিল তৈরি তে সাহায্য করবে এই প্লাগিনটি
  • ই-ট্রিপল ডব্লিউ ইমেজ – এটি একটি ইমেজ অপটিমাইজেশন প্লাগিন। যেকোনো ধরনের বড় ইমেজ কে সাইজ করে আপনার সাইট এর লোড টাইম ঠিক রাখতে সাহায্য করবে।
  • স্মার্ট এসইও লিঙ্ক – আউটবাইউন্ড লিঙ্ককে নো-ফলো করতে সাহায্য করবে।
  • অ্যাডদিস- সোশ্যাল এঙ্গেজমেন্ট এর জন্য এই প্লাগিনটা ব্যবহার করুন।

৫.  আপনি কি আপনার কোম্পানি বা ব্র্যান্ডের নামে জিমেল অ্যাকাউন্ট খুলেছেন? যদিও এটা তেমন গুরুত্বপূর্ণ না।

৬. গুগল ওয়েবমাস্টার টূল কি সেটআপ করেছেন?

৭. আপনি কি গুগল এনালিটিক্স সেটআপ করেছেন?

৮. কি-ওয়ার্ড সিলেক্ট করেছেন আপনার পোস্টগুলোর জন্য? না করে থাকলে গুগল অ্যাডওয়ার্ডস থেকে কি- ওয়ার্ডগুলো সংগ্রহ করুন।

৯.  আপনার কম্পিটিটোরগুলোর ডাটা সংরক্ষণ করেছেন?

১০. আপনি কি ডাটা এনালাইসি এর জন্য ওপেন সাইট এক্সপ্লোরার এবং এএইচরেফ ব্যাবহার করেছেন?

১১. আপনার বাছাই করা কি -ওয়ার্ড এবং কম্পিটিটর এর লিঙ্ক বিল্ডিং প্রোফাইল কি দেখে ডাটা সংরক্ষণ করেছেন?

১২. সঠিকভাবে ১৫৫ শব্দের মধ্যে আপনার মেটা ডেসক্রিপশন লিখেছেন?

১৩. আপনি কি আপনার পোস্ট এর পারমালিঙ্ক ঠিক করেছেন? এরকমভাবে“google.com/postname”। যদি না করে থাকেন তবে ওয়ার্ডপ্রেস সেটিং> পারমালিঙ্ক> থেকে সেটা ঠিক করুন।

১৪. পার্মালিঙ্ক কি কি-ওয়ার্ড ভিত্তিক করেছেন না কি পোস্ট টাইটেল এর সাথে সামঞ্জস্য রেখেছেন? যেমনঃ “Best 101 onpage optimization Checklist” ওপরটি google.com/onpageOptimizationChecklist, এই চেকলিস্টের যে স্ট্রাটেজি লিখতেছি, সেখানে আমি কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করেছি। কিন্তু প্রথমটিও রাখলে হবে।

১৫. কোন কনটেন্ট কি পাবলিশ করেছেন? যদি না করে থাকেন, তবে কমপক্ষে ১৫টি কনটেন্ট পাবলিশ করুন।

১৬. আপনার সাইট এর জন্য প্রাইভেসি পলেসি এবং টার্মস অফ ইউজ পেজ তৈরি করেছেন? এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ অ্যাডসেন্স ব্যবহারকারিদের জন্য এবং ব্র্যান্ড ওয়েবসাইট এর ক্ষেত্রে।

১৭. আপনি কি এইচ-১ ট্যাগ ব্যবহার করেছেন? অবশ্যই খেয়াল রাখবেন সাইট এর মেইন টাইটেক যেন কি-ওয়ার্ড এবং এইচ১ ট্যাগ ব্যবহার হয়।

১৮. আপনি আপনার পোস্ট কনটেন্ট এর মধ্যে এইচ ২,৩,৪ ট্যাগ ব্যবহার করেছেন? যদি না করে থাকেন, তবে অবশ্যই সেটা ব্যবহার করুন।

১৯. আপনার পোস্ট করা কনটেন্ট এর মধ্যে ইন্টারনাল লিঙ্ক ব্যবহার করেছেন?

২০. সঠিকভাবে কি টাইটেল লিখেছেন? – টাইটেল ট্যাগ এবং স্নিপ সম্পর্কে আরও ভালোভাবে জানতে ম্যাট এর ভিডিওটী দেখুন। টাইটেল সম্পর্কে আর বিস্তারতি লিখব সামনে।

২১. ইমেজ ওলটা ট্যাগ কি ব্যবহার করেছেন? ইমেজ যদি কোথাও থেকে সরাসরি নিয়ে আসে সাইটএ দেন, তবে সেটার ক্রেডিট দিন যেখান থেকে অরিজিনাল ইমেজটি নিয়ে আসছেন। এছাড়া ডেসক্রিপশন অপশনে ইমেজ এর সম্পর্কে বলুন। এতে করে ইমেজে র‍্যাঙ্ক করার সম্ভাবনা থাকে।

২২. আপনার সাইট কি ভালোভাবে লোড হচ্ছে? যদি সাইট দ্রুত লোড হয় কি না চেক করতে পিংডম এবং জিমেট্রিক্স ব্যবহার করুন। নিচের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে সমাধান করলে সাইট স্পিড অনেক বেড়ে যাবে।

  • আপনার কম্প্রেশন কি সক্রিয় আছে?
  • ব্রাউজার ক্যাশ চালু আছে?
  • ইমেজ কম্প্রেস করা আছে?
  • সিএসএস, এইচটিএমএল এবং জাভাস্ক্রিপ্ট কি মিনিফাই করা আছে?

২৩. ভিন্ন ভিন্ন পোস্টে কি আপনি মেটা ব্যবহার করেছেন?

২৪. পোস্ট মেটার মধ্যে কি কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করেছেন?

২৫. টাইটেলে কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করেছেন?

২৬. ট্যাগ ব্যবহার করেছেন? অবশ্যই ট্যাগের সাথে কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করুন।

২৭. আপনার টাইটেলে কিছু স্পেশাল ওয়ার্ড ব্যবহার করেছেন ভিজিটরদের কে আকৃষ্ট করার জন্য? যেমনঃ Best, in 2015, Guideline, 100+ ইত্যাদি।

২৮. হোমপেজ কনটেন্ট অপটিমাইজ করেছেন? কমপক্ষে ২০০-২৫০ শব্দের মধ্যে হোমপেজে কনটেন্ট অপটিমাইজ করুন। কনটেন্ট এর মধ্যে আপনার কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করুন। এতে সার্পে র‍্যাঙ্কিং-এ সাহায্য করবে।

২৯. বাউন্স রেট কমানোর জন্য এবং ক্লিক থ্রো-রেট বাড়ানোর জন্য আপনার কনটেন্ট কি সঠিক ফরম্যাটে সাজিয়েছেন?

৩০. আর্টিকেল এর মধ্যে প্রফেশনাল এবং রিলেটেড ইমেজ ব্যবহার করেছেন?

৩১. আর্টিকেল এর মধ্যে রিলেটেড ভিডিও ব্যবহার করেছেন? এমন ২-১ টা ভিডিও আপনার আর্টিকেলের মধ্যে ইম্বেড করুন যেন, ভিজিটর আপনার কনটেন্ট পড়ার পাশাপাশি ভিডিওটি দেখে উপকৃত হয়।

৩২. সোশ্যাল প্রোফাইলগুলো কি সঠিকভাবে তৈরি করেছেন? সোশ্যাল প্রোফাইলে তৈরি করার সময় সর্বদা আপনার ব্র্যান্ড ইউজারনেম ব্যাবহার করুন। এতে করে সার্পে দ্রুত আপনাকে খুজে পাবে, এবং ট্র্যাস্ট অথোরিটি বাড়বে। নিচের পয়েন্টগুলো থেকে সোশ্যাল প্রোফাইল রেডি করুনঃ

  • Facebook.com/Brand-Name
  • Twitter.com/ Brand-Name
  • Plus.google.com/+ Brand-Name
  • Linkedin.com/company/ Brand-Name
  • Pinterest.com/ Brand-Name
  • Instagram.com/ Brand-Name
  • Vine.co/ Brand-Name
  • VK.com/ Brand-Name
  • Youtube.com/ Brand-Name
  • Scribd.com/ Brand-Name
  • Scoop.it/ Brand-Name
  • En.gravatar.com/ Brand-Name
  • Brand-Name.thumblr.com
  • Scribd.com/ Brand-Name
  • Brand-Name.livejournal.com
  • Flicker.com/photos/ Brand-Name
  • Stumbleupon/ Brand-Name
  • Technorati/ Brand-Name
  • Reddit.com/ Brand-Name

৩৩. আপনার ওয়েবসাইট কি মোবাইল ফ্রেন্ডলি? আপনার সাইট পারফেক্ট মোবাইল ফ্রেন্ডলি কি না সেটা চেক করে নি গুগল মোবাইল ফ্রেন্ডলি চেকার টুল দিয়ে। আপনার সাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি না হলে মোবাইল সার্চে আপনার সাইট সার্পে আসবে না। সুতরাং যদি ৪০% এর অধিক ভিজিটর না হারাতে চান তবে এটি মোবাইল ফ্রেন্ডলি করুন।

৩৪. আপনি কি সাইটম্যাপ তৈরি করেছেন? আপনি যদি সাইট ম্যাপ তৈরি না করে থাকেন সেক্ষেত্রে এই টুল টি ব্যবহার করুন। আর যদি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে থাকেন তবে এই প্ল্যাগিনটি ব্যবহার করুন।

৩৫. আপনি কি রোবট ডট টিএক্সটি ফাইল ইঙ্কলুড করেছেন?

৩৬. আপনার সাইট এর এইচটিএমএল এরর চেক করেছেন? ডব্লিউ৩সি ভ্যালিডেটর থেকে আপনার সাইট এর এইচটিএমএল এরর চেক করুন।

৩৭. ডুপ্লিকেট কনটেন্ট চেক করেছেন আপনার সাইটের?

৩৮. আপনার সাইট-এ ব্রেডকাম্ব সেটআপ করেছেন? না করে থাকলে ইয়োস্ট এসইও প্লাগিনটি ব্যবহার করুন।

৩৯. আপনার সাইট এর ব্রোকেন লিঙ্ক চেঞ্জ করেছেন? যদি ব্রোকেন লিঙ্ক থাকে তবে সেগুলো ফিক্স করুন।

৪০. সঠিকভাবে ৩০১ রিডাইরেক্ট ব্যবহার করেছেন?

৪১. স্কেমা মার্কআপ সেটআপ করেছেন?

৪২. গুগল নলেজ গ্রাফ সেটআপ করেছেন?

৪৩. কি আরও চেকলিস্ট পড়তে চান নাকি? থাক আর দরকার নাই। এখন যেখান থেকে ডি-ইন্ডেক্স করেছিলেন সাইট সেখান থেকে ইন্ডেক্স করুন। :Big Grin

৪৪. এখানে কিছু অনপেজ এর জন্য গুরুত্বপূর্ণ টুল শেয়ার করলাম। যেগুলো আপনার এইসব কাজ সম্পন্ন করতে কাজে লাগতে পারে।

এই কাজগুলি সম্পন্ন করলে, আশা করি আপনি যেকোন প্রোজেক্টে এগুতে পারবেন। মনে রাখবেন, অনপেজ অপটিমাইজেশন একটি গুরুত্বপূর্ণ পার্ট সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের। এটা যদি সঠিক উপায়ে না করতে পারেন, তবে সার্পে আসা আপনার জন্য কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। তাই অনপেজ অপটিমাইজেশনের ক্ষেত্রে অবহেলা করবেন না। Smile

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s